টাকা পরিশোধ না করলে ট্যানারিতে চামড়া দেবেন না আড়তদাররা

0
29

নিজস্ব প্রতিবেদক

আড়তদারদের পাওনা টাকা পরিশোধ না করলে এবার ট্যানারি মালিকদের কাছে চামড়া বিক্রি করবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন পুরনো ঢাকার পোস্তার কাঁচা চামড়ার আড়তদাররা। আড়তদারদের এক জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শনিবার (১৭ আগস্ট) রাজধানীর লালবাগের পোস্তায় সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান কাঁচা চামড়া আড়তদারদের সংগঠন বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিএইচএসএমএ) সভাপতি দেলোয়ার হোসেন। এ সময় সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক হাজি মো. টিপু সুলতানসহ সংগঠনের অন্য নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘ট্যানারি মালিকদের কাছে আড়তদারদের প্রায় ৪০০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। এই পরিমাণ টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত ট্যানারি মালিকদের কাছে আমরা চামড়া বিক্রি করবো না। সভায় আমরা এই ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘রবিবার (১৮ আগস্ট) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ট্যানারি মালিক, আড়তদার ও কাঁচা চামড়া সংশ্লিষ্টদের বৈঠক আছে। সেখানে আলোচনার পর আমরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবো। আজ  (শনিবার) চামড়া বিক্রি করার কথা থাকলেও এখন থেকে আমরা আর বিক্রি করবো না।’

ট্যানারি মালিকদের কারণে এবার চামড়ার দাম কমে গেছে এমন অভিযোগ করে দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘ট্যানারিগুলো বকেয়া টাকা না দেওয়ায় এবার অর্থের অভাবে চামড়া কিনতে পারিনি। অন্যান্য বছর ঈদের আগের দিন আড়তদারদের সঙ্গে আলোচনা করলেও এবার তারা কোনও কথা বলেনি। তারা যদি আমাদের আশ্বস্ত করতো যে, ন্যায্য দামে চামড়া কিনবে, তাহলে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হতো না। কিন্তু এটি না করে উল্টো মিডিয়ার কাছে তারা নানা কথা বলেছে। এ কারণে দর আরও  কমেছে।’ ট্যানারি মালিকরাই এই পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

এদিকে, পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী কোরবানির পশুর লবণযুক্ত কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছেন ট্যানারি মালিকরা। শনিবার (১৭ আগস্ট) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও সালমা ট্যানারির মালিক সাখাওয়াত উল্লাহ। তিনি বলেন, ‘আনুষ্ঠানিকভাবে আজ  থেকে আমরা ট্যানারি মালিকরা লবণযুক্ত কাঁচা চামড়া কেনা শুরু করেছি। সরকার নির্ধারিত মূল্যে আগামী দুই মাস  আমরা চামড়া সংগ্রহ করবো।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here